যৌগিক সংখ্যা

১ হতে বড় কোনো স্বাভাবিক সংখ্যাকে যদি তার চেয়ে ছোট দুইটি স্বাভাবিক সংখ্যার গুণফল আকারে প্রকাশ করা যায়, তাকে যৌগিক সংখ্যা বলে। সকল ধনাত্মক পূর্ণ সংখ্যা যেমনঃ ১, ২, ৩, ……. ইত্যাদি হলো এক একটি স্বাভাবিক সংখ্যা। উদাহরণস্বরূপঃ ৫৭ হলো একটি যৌগিক সংখ্যা। কারণ ৫৭ সংখ্যাটি ১ অপেক্ষা বড় এবং ৫৭ কে তার চেয়ে ছোট দুইটি সংখ্যার গুণফলরূপে প্রকাশ করা যায় অর্থাৎ, ৫৭ = ৩ ⨯ ১৯। তাছাড়া, ৩ ও ১৯ উভয়ই ৫৭ অপেক্ষা ছোট। তাই দেখা যাচ্ছে, ৫৭ সংখ্যাটি যৌগিক সংখ্যার সকল বৈশিষ্ট্য ধারণ করে। অতএব, এটি একটি যৌগিক সংখ্যা। এভাবে ২০, ৩৮, ৫১, ৬৩, ৯১ এর সবাই এক একটি যৌগিক সংখ্যা।

আবার অন্যভাবে যৌগিক সংখ্যাকে সংজ্ঞায়িত করা যায়। যেসব স্বাভাবিক সংখ্যার ১ এবং ঐ সংখ্যা ছাড়াও কমপক্ষে আরেকটি গুণনীয়ক থাকে তাদেরকে যৌগিক সংখ্যা বলে। অন্যথায়, সংখ্যাগুলো মৌলিক সংখ্যা। সকল স্বাভাবিক সংখ্যারই দুইটি গুণনীয়ক বা উৎপাদক থাকে; আর তা হলো ১ এবং ঐ সংখ্যাটি নিজে। তাহলে, যৌগিক সংখ্যার গুণনীয়ক কমপক্ষে কয়টি? এ প্রশ্নের উত্তরে বলা যায়, যৌগিক সংখ্যার ক্ষেত্রে এই দুইটি উৎপাদক ছাড়াও কমপক্ষে আরও একটি উৎপাদক থাকতে হয়। যেমনঃ ৩৯ একটি যৌগিক সংখ্যা। কারণ ১ ও ৩৯ এর গুণফল ছাড়াও ৩৯ কে ৩৯ = ৩ ⨯ ১৩ আকারে প্রকাশ করা যায় অর্থাৎ, ১ ও ৩৯ ছাড়াও এর কমপক্ষে আরও একটি উৎপাদক ৩ বা ১৩ আছে।

Add Comment

Required fields are marked *. Your email address will not be published.

2 + four =