1. মোরা একটি ফুলকে বাচাবো বলে যুদ্ধ করি- গীতিকার-গোবিন্দ হালদার,সুরকার- আপেল মাহমুদ 2. এক সাগর রক্তের বিনিময়ে- গীতিকার- গোবিন্দ হালদার, সুরকার- আপেল মাহমুদ 3. ধনধান্য পুষ্প ভরা- গীতিকার- দিজেন্দ্রলাল রায় সুরকার- দিজেন্দ্রলাল রায় 4. এই পÙ এই মেঘনা এই যমুনা সুরমা নদী তটে- গীতিকার-আবু জাফর, সুরকার- আবু জাফর 5. আমিContinue Reading

 
 
Summary

কিছু কিছু শব্দের বানান প্রায়ই আসে , তাই এগুলো খুব সতর্ক তার সাথে দেখা জরুরী : . ১। অতিথি ২। অত্যন্ত ৩। অধ্যয়ন ৪। অধ্যবসায় ৫। অহোরাত্র ৬। অন্তর্ভুক্ত ৭।আইনজীবী ৮। আকাঙক্ষা ৯। আগমনী ১০। আদ্যন্ত ১১। আলোচ্যমান ১২। আষাঢ় ১৩। আত্মস্থ ১৪। ইতোমধ্যে ১৫। ইত:পূর্বে ১৬। ঈদৃশ ১৭।উচিত ১৮।উচ্ছ্বাসContinue Reading

 
 
Summary

৩৭তম বিসিএস প্রিলিমিনারি প্রস্তুতি —————————————- “লাল নীল দীপাবলি” থেকে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নোত্তর ।আশা করছি সবার কাজে লাগবে। ১। বাংলাসাহিত্য কত বছর ধরে রচিত হচ্ছে? -হাজার বছরের ও বেশি সময় ২।বাংলাসাহিত্যের প্রথম বইটির নাম কী? -চর্যাপদ ৩।কোন শতকে বাংলাসাহিত্যের জন্ম? -দশম শতকের মাঝামাঝি ৪।বাংলাসাহিত্যের জন্মলগ্নে কোন ভাষা টি সমাজের উঁচু শ্রেণীর ভাষাContinue Reading

 
 
Summary

বিসিএস সহ সকল চাকরির পরীক্ষায় এখন প্রায়ই ছোট বেলার ছড়া কবিতার কবি ও ছড়াকারের নাম আসতেছে । গুরুত্বদিন । বিসিএস প্রিলিতে যদি প্রাইমারির বই থেকে কোন কবিতার উক্তি আসে তাহলে এগুলোর বাইরে আসবে না । তাই একবার দেখে নিন। । সবার আমি ছাত্র সুনির্মল বসু । আকাশ আমায় শিক্ষা দিলContinue Reading

 
 
Summary

সাহিত্য সমালোচনা – (মার্কস -১৫) লেখার কৌশল এই ১৫ মার্কসের জন্য অামরা অনেকেই অনেক সময় নষ্ট করি। তাই নতুনদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করছি যাতে ১৫ মার্কসের জন্য ১৫ মার্কসের বেশী সময় নষ্ট না করে ফেলি। সাহিত্য সমালোচনায় এখনও সুনির্দিষ্ট কোন লেখক/সাহিত্য-এর নাম ধরে অাসেনি। অাশা করা যায় ৩৭ এও পূর্বের ধারাContinue Reading

 
 
Summary

‘সই, কেমনে ধরিব হিয়া? আমার বঁধুয়া আন বাড়ি যায় আমার আঙিনা দিয়া।’ ……. চণ্ডীদাস। ‘বড়র পিরীতি বালির বাঁধ ক্ষণে হাতে দড়ি ক্ষণেকে চাঁদ।’ ……. ভারতচন্দ্র রায় গুণাকর। ‘একটুখানি ভুলের তরে অনেক বিপদ ঘটে ভুল করেছি যারা, সবাই ভুক্তভোগী বটে।’ ……. আবুল হোসেন। ‘প্রীতি-প্রেমের পুণ্য বাঁধনে যবে মিলে পরস্পরে স্বর্গ আসিয়াContinue Reading

 
 
Summary

১।বাংলা সাহিত্যের প্রথম কাব্য গ্রন্থ বা গ্রন্থ কোনটি ? – চর্যাপদ ২। চর্যাপদ কোন শতকে রচিত হয়েচিল ? – দশম শতকের মধ্যভাগ থেকে দ্বাদশ শতকের মধ্যে( ৯৫০-১২০০) ৩। কোন শতকে বাংলা সাহিত্যে কবিতা বা পদ্য লেখা শুরু হয় ? – দশম শতক থেকে অষ্টাদশ ৪। কোন গ্রন্থের ভাষাকে সন্ধ্যাভাষা বলাContinue Reading

 
 
Summary

১/ বাংলা সাহিত্যের আদি নিদর্শন = চর্যাপদ আর মধ্য যুগের ১ম নিদর্শন = শ্রীকৃষ্ণকীর্তন। – ২/ ভাষার জগতে বাংলার স্থান = ৪র্থ আর সিয়েরা-লিওনের ২য় ভাষা হলো = বাংলা। – ৩/ নাটকের সংলাপে অনুপযোগী হলো = সাধু ভাষা আর সাধু ও চলিত ভাষার মিশ্রণকে = গুরুচণ্ডালী দোষ বলে। – ৪/Continue Reading

 
 
Summary

★★”পুঁথি সাহিত্য সম্পর্কে”★★ :::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::: 1. শায়ের কারা? উঃ পুঁথি সাহিত্যের রচয়িতাদের শায়ের বলা হয়। 2. পুঁথি সাহিত্যের প্রথম সার্থক কবি/রচয়িতা কে? উঃ ফকির গরীবুল্লাহ। 3. উল্লেখযোগ্য শায়েরের নাম কি? উঃ ফকির গরীবুল্লাহ, সৈয়দ হামজা, মালে মুহম্মদ, আয়েজুদ্দিন, মুহম্মদ মুনশী,দানেশ প্রমুখ। 4. পুঁথি সাহিত্যে কোন কোন ভাষার সংমিশ্রন ঘটেছে? উঃ আরবী,Continue Reading

 
 
Summary

চর্যাপদের আবিস্কার– ১৯০৭ খ্রি পূর্ববঙ্গের প্রখ্যাত মনীষী ও পণ্ডিত মহামহোপাধ্যায় ডঃ হরপ্রসাদ শাস্ত্রী (১৮৫৩-১৯৩১) কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণাকালে তার গবেষণাকাজের সহযোগিতার জন্য নেপালের রাজেন্দ্রলাল মিত্রের আমন্ত্রণে কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটির অর্থায়নে নেপালে গমন করেন এবং নেপালের রাজ গ্রন্থশালা পরিভ্রমণকালে চর্যাপদের হাতে লেখা ৪ খানি পুঁথি উদ্ধার করেন। পুঁথি ৪ টি হল- ১)Continue Reading

 
 
Summary

১। চর্যাপদে কতটি পদ পাওয়া যায় >> সাড়ে ছে চল্লিশটি ২।মোট পদকর্তা >> ২৩মতান্তরে ২৪। লালনীল দীপাবলিতে ২৪জন আছে। ৩।চর্যাপদের ভাষা যে বাংলা এটা কে প্রথম বলেছিলেন >> ড. সুনীতিকুমার চট্টোপ্যাধ্যায় ৪।বাঙলা ভাষার উত্পত্তি ও বিকাশ গ্রন্থটি রচয়িতা >>ড. সুনীতিকুমার চট্টোপ্যাধ্যায় ৫।হাজার বছরের পুরাণ বাঙ্গালা ভাষায় বৌদ্ধ গান ও দোহাContinue Reading

 
 
Summary

বাংলা ছন্দ প্রধানত তিন প্রকার যথা: স্বরবৃত্ত, মাত্রাবৃত্ত ও অক্ষরবৃত্ত। তাছাড়া মনে রাখবেনঃ ————————- পয়ার ছন্দে- অন্ত্যমিল থাকে। অমিত্রাক্ষর- অন্ত্যমিল নেই। স্বরবৃত্ত ছন্দকে লৌকিক ছন্দ বলে। মাত্রাবৃত্ত ছন্দকে ধ্বনির প্রধান ছন্দ বলা হয়। অক্ষরবৃত্ত ছন্দকে তান প্রধান ছন্দ বলে। ছড়া- স্বরবৃত্ত ছন্দে রচিত হয়। ছন্দের প্রবর্তকঃ —————— অমিত্রাক্ষর-মাইকেল মধুসূদন দত্তContinue Reading

 
 
Summary

সংক্ষিপ্ত কাহিনী :- “প্রাগৈতিহাসিক ” মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি ছোট গল্প। গল্পটি আবর্তিত হয় “ভিখু” নামে এক দস্যুকে কেন্দ্র করে। ডাকাতি, খুন, ধর্ষন যার একমাত্র জীবিকা। তাকে কখনও পুলিশও জেলে বন্দি রাখতে পারেনি, দু’মাসের মাথায় প্রাচীর টপকিয়ে পালিয়েছে। তাই, পুলিশের কাছে ভিখু ছিল মোস্ট ওয়ান্টেড ক্রিমিনাল। একদিন রাতে ডাকাতি করতে গিয়েContinue Reading

 
 
Summary

o বাংলা সাহিত্যের আদি নিদর্শন কি? উঃ চর্যাপদ । o চর্যাপদের রচয়িতা কারা? উঃ বৌদ্ধ সিদ্ধাচার্যগণ। o চর্যাপদ রচনায় কারা পৃষ্টপোষকতা করেছেন? উঃপাল রাজারা। o চর্যাপদের আবিষ্কারক কে? উঃ মহামহোপাধ্যায় হরপ্রসাদ শাস্ত্রী। o চর্যাপদ কত সালে আবিষ্কৃত হয়? উঃ ১৯০৭ সালে। o চর্যাপদ আবিষ্কারের স্থান কোনটি? উঃ নেপালের রাজ দরবারেরContinue Reading

 
 
Summary

১. বাংলা সাহিত্যে সৃষ্ট প্রথম চরিত্র কোনটি? উঃ নিরঞ্জন (শূন্য পূরাণ)। ২. ঠকচাচা নামক চরিত্রের স্রষ্টা কে? উঃ প্যারীচাঁদ মিত্র (আলালের ঘরের দুলাল)। ৩. চাঁদ সওদাগর বাংলা কোন কাব্য ধারার চরিত্র? উঃ মনসামঙ্গল। ৪. বেহুলা – লখীনদর ——- মনসামঙ্গল। ৫. কালকেতু, ফুল্লরা , মুরারি শীল ,ভাঁড়ুদত্ত, ধনপতি, খুল্লনা, কলিঙ্গের রাজা>> চন্ডীমঙ্গল(মুকুন্দরাম)।Continue Reading

 
 
Summary

১/ বাংলা ছন্দ প্রধানত = তিন প্রকার। যথাঃ স্বরবৃত্ত,মাত্রাবৃত্ত ও অক্ষরবৃত্ত। ২/ বাংলা সাহিত্যের প্রথম সনেট রচনা করেন= মাইকেল মধুসুদন দত্ত। ৩/ মাইকেল মধুসুদন দত্তের সর্বপ্রথম সনেট = বঙ্গভাষা। ৪. সনেটের প্রবর্তক = ইটালীর কবি পেত্রার্ক। ৫/ ধ্বনির প্রধান ছন্দ বলা হয = মাত্রাবৃত্ত ছন্দকে। ৬/ ছন্দের যাদুকর কাকে বলাContinue Reading

 
 
Summary

√ স্বরবর্ণ – ১১টি √ ব্যঞ্জনবর্ণ – ৩৯ টি √ মৌলিক স্বরধ্বনি – ৭ টি √ হ্রসস্বর স্বরধ্বনি – ৪ টি √ দীর্ঘস্বর স্বরধ্বনি – ৭টি √ মাত্রাহীন – ১০ টি √ অর্ধমাত্রা – ৮ টি √ পূর্ণমাত্রা – ৩২ টি √ কার – ১০ টি √ স্পর্শবর্ণ – ২৫Continue Reading

 
 
Summary

১. বাংলা ভাষার আদিকবি — লুইপা ২. আদি কবিদের মধ্যে সর্বাধিক কাব্য রচনা– কাহ্নপা ৩. পদাবলীর প্রথম কবি— চণ্ডীদাস ৪. প্রাচীনতম বাঙালি মুসলমান কবি– শাহ্ মোহাম্মাদ সগীর ৫. পুথিসাহিত্যের প্রাচীন লেখক— দৌলৎ কাজী ৬. সার্থক নাট্যকার/ সনেট রচনাকারী/ ৭. মহাকাব্য রচয়িতা— মাইকেল মধুসূদন দত্ত ৮. প্রথম মহিলা কবি— চন্দ্রাবতী ৯.Continue Reading

 
 
Summary

১. বাংলা সাহিত্যের প্রথম স্বার্থক নাট্যকারঃ মাইকেল মধুসূদন দত্ত। ২. বাংলাভাষায় প্রথম সনেট রচয়িতাঃ মাইকেল মধুসূদন দত্ত। ৩. বাংলা সাহিত্যের প্রথম মুসলমান নাট্যকারঃ মীর মোশাররফ হোসেন। ৪. বাংলা সাহিত্যের প্রথম গীত কবিঃ বিহারীলাল চক্রবর্তী। ৫. বাংলা সাহিত্যে প্রথম যতি চিহ্ন ব্যবহারকারীঃ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর। ৬. বাংলা সাহিত্যে প্রথম চলিত রীতি ব্যবহারকারীঃContinue Reading

 
 
Summary