‘সই, কেমনে ধরিব হিয়া?
আমার বঁধুয়া আন বাড়ি যায়
আমার আঙিনা দিয়া।’ ……. চণ্ডীদাস।
‘বড়র পিরীতি বালির বাঁধ
ক্ষণে হাতে দড়ি ক্ষণেকে চাঁদ।’ ……. ভারতচন্দ্র রায় গুণাকর।
‘একটুখানি ভুলের তরে অনেক বিপদ ঘটে
ভুল করেছি যারা, সবাই ভুক্তভোগী বটে।’ ……. আবুল হোসেন।
‘প্রীতি-প্রেমের পুণ্য বাঁধনে যবে মিলে পরস্পরে
স্বর্গ আসিয়া দাঁড়ায় তখন আমাদের কুঁড়ে ঘরে।’ ……. শেখ ফজলুল করিম।
“সাহেব কহেন, ‘চমৎকার! সে চমৎকার!’
মোসাহেব বলে, ‘চমৎকার সে হতেই হবে যে।
হুজুরের মতে অমত কার?’ ” ……. কাজী নজরুল ইসলাম।
‘নীল নবঘনে আষাঢ় গগনে
তিল-ঠাঁই আজ নাহিরে।
ওগো, আজ তোরা যাস্ নে ঘরের বাহিরে।’ ……. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
‘আমি শুনে হাসি, আঁখিজলে ভাসি
এই ছিল মোর ঘটে-
তুমি মহারাজ, সাধু হলে আজ
আমি আজ চোর বটে।’ ……. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
‘করিতে পারি না কাজ
সদা ভয় সদা লাজ,
সংশয়ে সংকল্প সদা টলে
পাছে লোকে কিছু বলে।’ ……. কামিনী রায়।

By Master

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *