গল্পে গল্পে মহাদেশকে জানা: এশিয়া -৬

আচ্ছা, সারাদিন বিসিএসের পড়াশোনা করতে গিয়ে মাঝে মাঝে কি আপনার গরম চুলার আগুনে ঝাপিয়ে পড়তে ইচ্ছে করে !! যদি ইচ্ছে হয়, যেন তেন চুলার আগুনে ঝাপ দিয়ে ইজ্জত হারাবেন না। সোজা ইরানে চলে যান। ওখানে তিন-তিনটা পারমানবিক চুল্লি পাবেন- বুশেহর পরমানু চুল্লি, দারখুয়িন পরমানু চুল্লি এবং ইস্ফাহান পরমানু চুল্লি। যে কোন একটাতে ঝাপিয়ে পড়ে নিজের দেশের নাম উজ্জ্বল করুন। তবে যাওয়ার আগে সাবধান এই চুলা নিয়ে কিন্তু ইরান আর আমেরিকার মধ্যে মুখ দেখাদেখি বন্ধ ছিলো ১৯৮০ সাল থেকে। এই কিছুদিন হলো দুই বান্ধবীর সম্পর্ক কিছুটা ভালো।

চুল্লির কথা গেলো, যদি আপনি পরমানু বোমার বিস্ফোরন চোখের সামনে দেখতে চান একটু কষ্ট করে উত্তর কোরিয়া চলে যান। ওখানে প্রায়ই ফরমালিন মুক্ত পরমানু বোমার মেলা বসে (কাল্পনিক)। উত্তর কোরিয়া ৮ম দেশ হিসেবে ২০০৬ সালের ৯ অক্টোবর পরমানু বোমার বিস্ফোরন ঘটায়। যদি সত্যিই যান তবে প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের সাথে সেলফি তুলতে ভুলবেন না !!

চুল্লি গেল, আবার পরমানু বোমাও গেল, আচ্ছা যদি আপনার গ্রামে যেতে ইচ্ছা করে কি করবেন? নিজ গ্রামে তো কতই গেছেন, এবার চলেন পান্মুঞ্জাম গ্রামে যায়। চিনতে পারেন নাই? এটা হলো উত্তর আর দক্ষিণ কোরিয়ার ঠিক মাঝখানে অবস্থিত একটা গ্রাম। সময় পেলে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন ব্লু হাউজে ঘুরে আসতে পারেন। ভালো কথা দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের নাম জানেন তো? পার্ক জিউন হাই, মহিলা দেখতে কিউট আছেন !!

আর যদি আপনার কোথাও যেতে ইচ্ছে না হয়, টেবিলে বসে মুড়ি পেয়াজু খান। আমি নেপাল থেকে ঘুরে আসি। নেপালের শেষ রাজা বীর বিক্রম শাহ দেবের সাথে সেলফি আমাকে তুলতেই হবে। ভালো কথা জানেন তো, ২৮ মে, ২০০৮ সালে নেপালে ২৪০ বছরের রাজতন্ত্রের বিলোপ হয় এবং ৮ সেপ্টেম্বর ২০০৮ এ নেপাল সরকার দাস প্রথা বিলোপ করে। ভাগ্যিস দাস প্রথা নাই, নয়ত আমার যা চেহারা নিশ্চিত দাস হিসেবে চালায় দিতো !!

কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ সাগর রহমান

Add Comment

Required fields are marked *. Your email address will not be published.

four × 4 =